গবেষণার কাজে গিয়ে ঢাবি অধ্যাপকের মৃত্যু

উচ্চ শিক্ষা শিক্ষা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার শ্যামনগরে গবেষণার কাজে আসা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক রাশিদ মাহমুদ মারা গেছেন ( ইন্না লিল্লাহি… রাজিউন)

বুধবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে উপজেলার চালিতাঘাটা বাজার এলাকার একটি রিসোর্টে তিনি মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৪৬ বছর। খবর পেয়ে রাতেই তার স্বজনরা মৃতদেহ নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন। অধ্যাপক রাশিদ মাহমুদ ফেনী জেলার পাঁচগাছিয়া গ্রামের চেয়ারম্যানবাড়ীর মাহমুদুল হক তাহেরের ছেলে।

মৃতের ভাইরা যশোর চৌগাছা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক জিয়াউর রহমান রিন্টু জানান, অধ্যাপক রাশিদ মাহমুদ ডায়াবেটিসের রোগী ছিলেন। তিনি ‘কমিউনিটি ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট’ বিষয়ের উপর গবেষণা কাজে অংশ নিতে বেশ কয়েকবার শ্যামনগর এসেছিলেন। সর্বশেষ ২০ মার্চ তিনি শ্যামনগরে আসার পর ১ এপ্রিল সকালে ঢাকায় ফেরার প্রস্তুতিও নিয়েছিলেন।

জিয়াউর রহমান রিন্টু আরও জানান, চালিতাঘাটার ওই রিসোর্ট নিজ কক্ষে অচেতন হয়ে পড়লে স্থানীয়রা দ্রুত তাকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক বলেও জানান তিনি।

শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক তৌহিদুর রহমান বলেন, ডায়াবেটিসের কারণে হাইপো থেকে স্ট্রোকে তার মৃত্যু হয়েছে।

শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাজমুল হুদা জানান, পরিবারের সদস্যরা ময়নাতদন্ত ছাড়াই অধ্যাপক রাশিদ মাহমুদের মৃতদেহ নেওয়ার লিখিত আবেদন করায় হাসপাতাল থেকে তার মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *